আমরা বাঙালী ফাউন্ডেশনের হৃদয় ছোঁয়া সংগীতসন্ধ্যা-"জলাঙ্গী"
নিউজ-বাংলা ডট কম   
শনিবার, ২৮ অক্টোবর ২০১৭

গত ২২শে অক্টোবর রবিবার সন্ধ্যায় ভার্জিনিয়ার স্প্রিংফিল্ডস্থ হলিডে ইন হোটেলের বল রুমে  হয়ে গেল রবীন্দ্রনাথের  গান নিয়ে "জলাঙ্গী" শিরোনামে এক সংগীতসন্ধ্যা।  সম্প্রতি বন্যা ত্রান তহবিলে যারা অনুদান দিয়েছেন তাঁদের সম্মানে আমরা বাঙালী ফাউন্ডেশন এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। 


অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন প্রবাসের সৌখিন কবি সামিনা আমিন। সংগঠনের  সভাপতি  জীবক বড়ুয়ার শুভেচ্ছা বক্তব্য দিয়ে অনুষ্ঠান শুরু হয়। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ দূতাবাসের উপপ্রধান এবং  কবি মাহবুব হাসান সালেহ।

দুই পর্বে সাজানো এই আয়োজনের প্রথম পর্বে  সংগীত পরিবেশন করেন  দুই বাংলায় জনপ্রিয় রবীন্দ্র সঙ্গীত শিল্পী শ্রেয়া গুহঠাকুরতা ।রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের বিভিন্ন পর্যায়ের বৈচিত্র্যময় গানের মঞ্জরী সাজিয়ে শ্রেয়া গুহঠাকুরতা  সংগীত পরিবেশন করেন ভারতের শিল্পী শ্রেয়া গুহঠাকুরতা। রবীন্দ্রনাথের  গানের বাণী নিরন্তর তিনি ছড়িয়ে দিচ্ছেন বিশ্ব-দুয়ারে।  রবীন্দ্রনাথের সৃষ্টিতে  তার সুরের  বন্দনা নিরন্তর। শ্রেয়া  সেই সৌন্দর্যের সৌম্যতাকে ধারণ করেন সুরের অনুরণনে। তার কন্ঠে প্রেমে, প্রাণে, সুরে, সাহসে রবীন্দ্রনাথ হয়ে উঠেছিল  পরম বন্ধুর মতন। ইতো সেদিনের উপস্থিত  শ্রোতারা  শ্রেয়া গুহ ঠাকুরতার গানে  আবেগাপ্লুত হয়ে উঠে। তার সুরের মঞ্জরীতে শিল্পী এবং শ্রোতার মাঝে গাঁথে এক অপার অলীক রাখীবন্ধন!  প্রাণের উত্সরণে শ্রেয়ার গান তাই তো প্রয়াসী করে তোলে সুর আর ছন্দের নিত্য প্রণতির অভিযাত্রাকে। তোমায় গান শুনাবো" গানের সূরে শুরু আর "চিরসখা হে ছেড়ো না মোরে" দিয়ে শেষ। আর এরই  মাঝে প্রায় এক ঘন্টা রবির গানে তিনি বিমোহিত করেন সকল শ্রোতাদের।

দ্বিতীয় পর্বে  সংগীত পরিবেশন করেন গ্রেটার ওয়াশিংটনের জনপ্রিয় শিল্পী দিনার মণি।   রবিঠাকুরের গান "কৃষ্ণ কলি আমি তারেই বলি" দিয়ে তার গানের সূচনা। তার পর একে একে জনপ্রিয় নজরুল গীতি, রাধারমনের গান, এসডি বর্মন ও লালনের গানে মুগ্ধ করেন শ্রোতাদের। দিনার মণি শেষ করেন লালনের গান " জাত গেল জাত গেল বলে" পরিবেশনার মাঝে।
হল ভরা শ্রোতারা আগ্রহ নিয়ে দিনারের গান উপভোগ করেন।

শ্রেয়া এবং দিনারের গানের সাথে  তবলায় দেবু নায়ক, কীবোর্ড নিয়ে হীরন চৌধুরী,বাঁশিতে মোহাম্মদ মজিদ, মন্দিরায় জয় দত্ত বড়ুয়া  ও শব্দ নিয়ন্ত্রক শিশির।

অনুষ্ঠানের শুরুতে " আমরা বাঙালী ফাউন্ডেশন" এর ত্রাণ বিতরণ কার্যের ছায়াচিত্র তুলে ধরা হয় । পরিচয় করিয়ে দেওয়া হয় সংগঠনের সাত কর্ণধার  জীবক বড়ুয়া, দস্তগীর জাহাংগীর,  আমান উল্লাহ আমান, দেওয়ান আরশাদ আলী বিজয়, ফজলুর রহমান চৌধুরী, মোঃ আলতাফ হোসেন এবং  মোস্তাফিজুর রহমানকে।  

নৈশ ভোজে আপ্যায়ন শেষে এক রাশ মুগ্ধতা নিয়ে শেষ হয়  সংগীত সন্ধ্যা "জলাঙ্গী"আয়োজন ।

সর্বশেষ আপডেট ( শনিবার, ২৮ অক্টোবর ২০১৭ )