প্রবাসী জীবন যুদ্ধে মোনালিসা
নিউজ-বাংলা ডেস্ক   
বৃহস্পতিবার, ০৫ অক্টোবর ২০১৭

অপলক দৃষ্টিতে তাকিয়ে থেকে চোখের পলক  যেন পড়ে না ।  তার হাসি যেন  শরতের বাতাসে মিশে গিয়ে ভেসে আসে মৃদ মৃদ ছন্দে।  তার চোখের ভাষা, হাসি, কথা সব কিছুতেই এক  অপরূপ মুগ্ধতা। সবাই যেন মুগ্ধ  তার রূপে। তিনি সুন্দর।  তিনি  বাংলাদেশের এক সময়কার জনপ্রিয় মডেল, অভিনেত্রী ও নৃত্যশিল্পী মোজেজা আশরাফ মোনালিসা। গালে টোল পড়া হাসি দিয়ে অনেক ভক্তের হৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছিলেন তিনি। একটা সময় নাটক, টেলিছবি, বিজ্ঞাপন করেছেন অগণিত। কিন্তু এখন আর আগের মতো তার ভক্তরা তাকে পর্দায় দেখতে  পায়না। বিশেষ করে মোনালিসা জনপ্রিয়তায় আসেন বিজ্ঞাপন দিয়ে।  এরপর তার রূপ গুনমুগ্ধকর অভিনয় দিয়েই রাতারাতি পৌঁছে যান দর্শকের হৃদয়ে।

কিন্তু হঠাৎ করেই  ২০১২ সালের জুনে আমেরিকা প্রবাসী ফাইয়াজ শরীফের সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন মোনালিসা।  একই বছরের ম্যাজিক ডে ১২.১২.১২ তে ঢাকার একটি রেস্টুরেন্টে মোনালিসা ও ফাইয়াজের বিবাহোত্তর সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়।  কিন্তু বিয়ের পরেই হারিয়ে যেতে থাকেন মিডিয়া থেকে। পাড়ি জমান আমেরিকাতে। ভালোই চলছিলো তার নতুন জীবন নতুন সংসার। কয়েক মাস যেতে না যেতেই খবর আসে যে স্বামীর সংসারে থাকছেন না তিনি।  স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদেরও একটি খবর রটে তখন।

এরপর থেকে মোনালিসা নিজের মত করে আলাদা হয়ে যান। আমেরিকার মত দেশে নিজেকে টিকিয়ে রাখতে শুরু হয় তার নতুন জীবন যুদ্ধ। সেই যুদ্ধে তিনি জয় লাভ করেন। ফেসবুকে দেয়া কিছু ছবিতে দেখা গেছে  আগের চেয়ে আরও সুন্দর হয়েছেন তিনি। একটা জীবনের নানা পথ পাড়ি দিয়ে তিনি এখনও তার রূপ ধরে রেখেছেন আগেরই মতো।

কিছু ছবিতে দেখা গেছে অফিসিয়াল পোশাক পরে আছেন। সাথে তার অফিস সহকর্মীরা।  জানা যায়, আমেরিকাতে প্রোগ্রাম পরিচালক হিসেবে তিনি স্থানীয় একটি টেলিভিশনে কর্মরত আছেন।
 তার মানে খবর আসে তিনি চাকরি করছেন সেখানে।  নিজেকে টিকিয়ে রাখতে রেস্টুরেন্টে কাজ করা থেকে শুরু করে অনেক কিছুই করতে হয়েছে তাকে। এরপর আবার খবর আসে ‘কিকো মিলানো’ নামের ইতালিয়ান ব্রান্ডের একটি কসমেটিক্স, মেকাপ এন্ড স্কীন কেয়ারে নতুন ভাবে কাজ করবেন তিনি। আর নিয়ে ফেসবুকে মোনালিসার ভক্তদের কাছে চেয়েছেন
 দোয়া ও ভালবাসা। তিনি তার স্ট্যাটাসে লিখেছিলেন, ‘সবকিছুই কোনো না কোনো কারণে ঘটে থাকে।  যদিও অনেক দায়িত্ব, অনেক চ্যালেঞ্জ তারপরও আমি চেষ্টা করব আমার আত্মবিশ্বাসের সাথে সব দায়িত্ব পালন করতে, আমার পৃথিবীটাকে নতুন করে সাজাতে। তোমরা সবাই আমার জন্য দোয়া করো।’

 কিন্তু পৃথিবীকে তোমার হাসিটাকে মলিণ করে দেয়ার সুযোগ করে দিও না। তোমার হাসি দিয়েই পৃথিবীটাকে  অথবা জীবনটাকে পরিবর্তন করতে পারো।  আমেরিকায় এক বন্ধুর বিয়েতে তাকে দীর্ঘ বছর পর আবারও শাড়িতে দেখা গেল। শাড়িতেই যে মেয়েদের বাঙ্গালিয়ানা এটা তিনি আবারও প্রমাণ করলেন।   এখনও তিনি সংগ্রাম করে যাচ্ছেন। শত কষ্টের মাঝেও হাসি আনন্দে নিজের অতিত ভুলে থাকেন মোনালিসা। সদ্য ফেসবুকে দেয়া কিছু ছবিতে দেখা গেছে আগের চেয়ে আরও সুন্দর হয়েছেন তিনি।
সর্বশেষ আপডেট ( বৃহস্পতিবার, ০৫ অক্টোবর ২০১৭ )