"বাই" এ্রর মনোজ্ঞ ধন্যবাদ জ্ঞাপন অনুষ্ঠান
নিউজ-বাংলা ডেস্ক   
বৃহস্পতিবার, ০৫ অক্টোবর ২০১৭

যুক্তরাষ্ট্রের ভার্জিনিয়ার স্প্রিং ফিল্ডের  কমফোর্ট ইন হোটেলের বলরুমে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল উত্তর আমেরিকার প্রথম  সামাজিক সংগঠন বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অব আমেরিকা (বাই)এর  ধন্যবাদজ্ঞাপন অনুষ্ঠান। "বাই" নিবেদিত সফল মঞ্চায়িত নাটক "পাল্কী"র কলা-কুশলী, স্পন্সর এবং ভলেন্টিয়ারদের প্রশংসা  এবং ধন্যবাদজ্ঞাপনের উদ্দেশ্যে গত ২৪শে সেপ্টেম্বর  রোববার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।


অত্যন্ত আনন্দঘন পরিবেশে  এটা ছিল "বাই" পরিবারের এক মিলনমেলা। "ঘুড়ি", "ঢেউ" এর পথ ধরে আধুনিক প্রযুক্তি নির্ভর নতুন ধারার এই সিনেমেটিক নাটক "পাল্কী"র সাফল্য ছিল অনন্য। তাই প্রাণের আনন্দে, ভাবের আদান-প্রদানে এক সুন্দর প্রাণবন্ত সন্ধ্যার অভিজ্ঞতায় আপ্লুত হয় সবার মন। সামাজিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে ভূমিকা রাখার জন্য এই সংগঠন সারা বছরব্যাপী বিভিন্ন কার্যক্রম হাতে নিয়ে থাকে। সারা বছরের বিভিন্ন সামাজিক কার্যক্রমের ধারাকে আরো বেগবান করার জন্য নাটক মঞ্চায়ন "বাই" এর একটি তহবিল উন্নয়ন প্রকল্প।


"বাই" মেট্রো এলাকার অন্যতম বৃহৎ সামাজিক সংগঠন যার কার্যক্রমের ধারায় ও ব্যাপ্তিতেই তার বহিঃপ্রকাশ। বাংলা  সংস্কৃতি, কৃষ্টি ও ঐতিহ্যকে নতুন প্রজন্মের কাছে তুলে ধরে এর  চর্চা ও প্রতিভা বিকাশের সুযোগ দিচ্ছে "বাই"।  একই সঙ্গে নতুন প্রজন্মকে আমাদের দেশ, দেশের ইতিহাস, আমাদের সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দিচ্ছে  "বাই" তাদের কার্যক্রমের মধ্য দিয়ে। পাশাপাশি বাংলাদেশের দুঃস্থ মানুষের কল্যাণে স্বীয় উদ্যোগ বং অন্যান্য সংগঠনের সংলিষ্টে কাজ করছে। এ ছাড়া মুলধারার বিভিন্ন সংগঠনের সাথে যুক্তরাষ্টের দুঃস্থ মানুষের জন্যও "বাই" কাজ করছে।
সংগঠনের সভাপতি সফি দেলোয়ার কাজলের স্বাগত বক্তব্যের পর  ছিল শিল্পী কলা কুশলী এবং স্পন্সরদের প্রশংসা এবং ধন্যবাদ জ্ঞাপন। বাই এর পরিচালনা পর্ষদের সদস্যরা গোলাপ ফুলের শুভেচ্ছাতে তাদের ধন্যবাদ জানান।

 

এরপর সকলকে প্রসংশা সনদপত্র তুলে দেন সংগঠনের সাবেক সভাপতি ওয়াহেদ হোসেনী, ডঃ বশির আহমেদ এবং সাবেক সাধারন সম্পাদক ডঃ ফয়জুল ইসলাম।


শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন সংগঠনের সাবেক সভাপতি ইনারা ইসলাম। পাল্কী টিমের পক্ষে পরিচালক কামরুল খান লিংকন, রুমা খান, শিল্পী অদিতি চৌধুরী এবং সামারা এলাহী।
পাল্কী নাটক থেকে কবিতা আবৃত্তি করে অদিতি সাদিয়া রহমান, পাল্কীর জনপ্রিয় মৌলিক গানটি পরিবেশন করেন দিনার মনি, পুথি পাঠ করে সফিকুল ইসলাম এবং পাল্কী নিয়ে তার অনুভূতি প্রকাশ করেন রায়হান এলাহী।  সব শেষে সংগীত পরিবেশন করে আনন্দ খান, দিনার মনি এবং তরুন প্রজন্মের শিল্পী  ঐশী  ।

শিল্পীদের পরিবেশনা উপস্থিত সকলের মন জয় করে। নৈশ ভোজে আপ্যায়নের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয়।
 

সর্বশেষ আপডেট ( বৃহস্পতিবার, ০৫ অক্টোবর ২০১৭ )