ওয়াশিংটনে “বাংলাদেশ ক্রিকেট লীগ ২০১৭" এর শুভ সূচনা
নিউজ-বাংলা ডেস্ক   
বৃহস্পতিবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৭

বিপুল উৎসাহ ও উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে  গত ২৩শে সেপ্টেম্বর শনিবার  শুরু হয়েছে  বি সি এল (বাংলাদেশ ক্রিকেট লীগ) ২০১৭।  TechTrend (www.techtrend.us) গ্র্যান্ড স্পন্সরশীপে
ভার্জিনিয়ার আলেকজান্দ্রিয়াস্থ  মার্ক টোয়েন মিডল স্কুল এর মাঠে অনুষ্ঠিত  এবারের লীগে ১০টি দল অংশগ্রহন করেছে।  বাংলাদেশ ক্রিকেট লীগ ২০১৭ খেলার উদ্বোধন করেন ওয়াশিংটন এ বাঙালী ক্রিকেটের পথিকৃত কাজী খায়রুজ্জামান মিতু ভাই ।  তিনি তার বক্তব্যে খেলোয়াড়দের কে সুন্দর ও পরিছন্ন খেলা উপহার দেয়ার  অনুরোধ জানান।  উল্লেখখ এবার প্রতি দলেই ৩ জন করে বিদেশী খেলোয়াড় রেজিস্ট্রেশন করেত পারবে এবং ২ জন খেলতে পারবে। প্রতিটি খেলা পরিচালনা করছে বিদেশী আম্পায়ার।

 মৌসুমের শুরুতেই উড়ন্ত সূচনা করেছেন  ভার্জিনিয়া টাইগার্স।  প্রথম খেলায় তারা অতি সহজেই হারিয়েছেন স্ট্রাইকারস ব্রাদার্স কে।  টসে জয়ী হয়ে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে স্ট্রাইকারস ব্রাদার্স  মামুলি ৬৭ রান সংগ্রহ করে ১৭.৩ ওভারে ১০ উইকেট এর বিনিময়ে । জামান এর ১৯ ও নেপালী খেলোয়াড় নীড় এর ১৭ এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য।  রসি ৩ ওভারে এক মেডেন সহ মাত্র ৫ রানে ৪ উইকেট নিয়ে স্ট্রাইকারস ব্রাদার্স  ব্যাটিং লাইনআপ গুড়িয়ে দেন। জবাবে ভার্জিনিয়া টাইগার্স মাত্র ২ উইকেট হারিয়ে ৮.২ ওভারেই প্রয়োজনীয় রান তুলে নেয়।  রসির হার না মানা ১৮ বলে ২৩ ও বোলিংয়ে ৪ উইকেট নেয়াতে তাকে শ্রেষ্ঠ খেলোয়াড় এর সন্মান এনে দেয়।  ভার্জিনিয়া টাইগার্স এর গৌরভ বাজাজ ১৫ বলে ৩ ছক্কা সহ ২৫ রান করেন। ভার্জিনিয়া টাইগার্স এর বিলাল ও যুবি ২ টি করে উইকেট নেন।

শনিবার দিনের দ্বিতীয় খেলা হয়  হারান্ডন বেঙ্গলস ও  দুরন্ত টাইগারস এর মধ্যে। নাটকে ভরপুর ও টান টান  উত্তেজনায় ভরা এ খেলায়  হারান্ডন বেঙ্গলস  প্রথমে ব্যাট করে।  আবু বকর ২৪, জুনায়েদ ২৭ ও নাজুর ২২ রানের ব্যাট এ ভর করে ১৩২ রান করে ২০ ওভারে ৯ উইকেট এর বিনিময়ে।  আক্রমণাত্মক বোলার এরশাদের ৪ ওভারে করা বোলিং তাকে ৫ উইকেট এনে দেয় মাত্র ১৬ রানের বিনিময়ে।  জবাবে ব্যাট করতে নেমে দুরন্ত টাইগারস হারান্ডন বেঙ্গলস এর নিয়ন্ত্রিত বোলিং এ পরে প্রথম ১০.৩ ওভারে মাত্র ৫৫ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে ফেলে।  আর ঠিক তখনি দায়িত্বশীল ব্যাটসম্যান নাসির এর সাথে যোগ দেন দুরন্ত টাইগারস এর বিদেশী রিক্রুট মারকুটে অলরাউন্ডার হামিদ মুনির।  নাসির ও হামিদ দলকে আস্তে আস্তে জয়ের বন্দর এ নিয়ে গেলেও নাটক তখন ও বাকি ছিল।  লাস্ট ওভারে তাদের দরকার হয় মাত্র ৭ রান এর।  অভিজ্ঞ জুনায়েদ  লাস্ট ওভার এ ৬ বল এ মাত্র ৬ রান দিয়ে নাসির এর উইকেটও নিয়ে নেন সেই সাথে খেলাকে সুপার ওভার এ নিয়ে যান।  জুনায়েদ প্রথম ৩ বলে ৪ রান দেয় তারপর একটা ডট বল দিয়ে পঞ্চম বলে নাসির এর মূল্যবান উইকেট তুলে নিলে হারান্ডন এর জয়ের দারুন সম্ভাবনা জেগে উঠে। কিন্তু লাস্ট  বলে নায়ীম দুই রান তুলে নিলে খেলা  সুপার ওভার এ যায়।   দুরন্ত টাইগারস প্রথমে ব্যাট করে সুপার ওভার এ এবং হারান্ডন বেঙ্গলস'র নাভিদ  নূরী'র করা এক ওভারে ১৩ রান সংগ্রহ করে।  নূরীর একটি ওয়াইড বল ৪ হয়ে গেলে এক বল এ ৫ রান এর খেসারত দিতে হয়।  জবাবে  বি সি এল এর  অন্যতম সেরা বলার এরশাদ এর ওভারে হারান্ডন বেঙ্গলস মাত্র ৯ রান নিতে পারে।  সেই এক ওয়াইড বলের চরম মূল্য দিয়ে মৌসুম এর প্রথম খেলায় পরাজয় মেনে নিতে হয় হারান্ডন বেঙ্গলস কে ।  নাসির এর দায়িত্বশীল ৫৩ রানের ইনিংস তাকে ম্যাচ সেরার সন্মান এনে দেয়।

রবিবার এ হয় দুইটি হাই ভোল্টেজ গেম।  দিনের প্রথম খেলায় অংশ নেয় ব্লিজার্ডস বনাম প্যান্থারস।  প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ব্লিজার্ডস ওপেনার রা মারমূখী খেলা শুরু করলে নিয়মিত বিরতিতে তাদের উইকেট পড়তে থাকে। শেষের দিকে এমিল এর ১৫ বলে ২৬ তাদের একটা সম্মানজনক স্কোর এনে দেয়।  ব্লিজয়ের ১৮ ওভারে অল আউট হয়ে সংগ্রহ করে ১৩১ । জবাবে ব্যাট  করতে নেমে প্যান্থারস এর চৌকস ওপেনার ইমরান আলী ও সৌম্যর  যথাক্রমে ৫০ ও ৩৭ রানের সুবাদে অনেকটা সহজেই জয়ের পথে পারি জমায়।  উজ্জ্বল বড়ুয়া প্যান্থারস এর হয়ে ৪ ওভারে ২৬ রানের বিনিময়ে ৫ উইকেট নিলেও ইমরান এর ৫০ রান তাকে ম্যান অফ দি ম্যাচ পুরস্কার এনে দেয়।  মাসুদ পেন্থারস এর ৩ উইকেট  নিয়ে কিছুটা প্রতিরোধ করেন।

রবিবার দিনের দ্বিতীয় খেলা হয়  ভার্জিনিয়া ওয়ারিয়র্স বনাম সিলেট রয়েলস এর। সিলেট রয়েলস এর আসিফ, মাহেশ , মুনিম ও আরিফ এর ব্যাট এ ভর  করে  তাদের দল ১৬২ রান এর বিশাল সংগ্রহ করে। রাকিব একাই ৪ টি ৬ ও ৩ টি ৪ মেরে ৩৬ বলে ৪৮ রান করেন। ভার্জিনিয়া ওয়ারিয়র্স এর সুমন বাড়ি ২ ওভার বল করে ২ উইকেট নেন এবং অন্যান্য বলের রা একটি করে উইকেট ভাগ করে নেন।  জবাবে  ভার্জিনিয়া ওয়ারিয়র্স ব্যাটিং এর  শুরুতেই  প্রথম ওভারের দ্বিতীয় বলেই অভিজ্ঞ সুমন বাড়ি কে হারিয়ে শঙ্কায় পরে যায়।  কিন্তু তাদের দুই বিদেশী রিক্রুট গোকারান রূপনারায়ণ (জুসি) ও ফ্রাঙ্কলিন ক্লেমেন্টর মারমূখী ব্যাটিং সকল শঙ্কা দূর করে তাদের দল ক অতি সহজ এক জয় এনে দেয়।  গোকারান রূপনারায়ণ (জুসি) তার বিধ্বংসী ব্যাটিং এ ৮ ছক্কা ও ৫ চৌকা মেরে মাত্র ৪৭ বলে ৮৮ রান করেন। তার ব্যাটিং মাঠে  এ থাকা বিপুল দর্শক দেড় আনন্দ দেয় । তার ওপর সঙ্গী  ফ্রাঙ্কলিন ক্লেমেন্ট ও কম যান নি।  তিনি ৫ ছক্কা ও ২ চৌকা মেরে মাত্র ৩২ বলে ৫৫ রান করেন। তারা দুজন মাত্র  ১৩.১ ওভারে খেলা শেষ করে দেন।  জুসি এই খেলায় ম্যাচ সেরা হন।

আগামী শনিবার ৩০শে সেপ্টেম্বর  এর খেলা: ১০ টা : লায়ন স্কোয়াড বনাম সিলেট রয়্যালস - ২ টা : ভার্জিনিয়া ওয়ারিয়র্স বনাম প্যান্থারস ।

আগামী রবিবার  ১লা অক্টোবর এর খেলা: ১০ টা : স্ট্রাইকারস ব্রাদার্স  বনাম দুরন্ত টাইগারস - ২ টা : প্রিন্স উইলিয়াম ব্রাদার্স বনাম ভার্জিনিয়া টাইগার্স।

বাংলাদেশ ক্রিকেট লীগ কর্তৃপক্ষ  সকল দর্শকদের সাদর আমন্ত্রণ জানিয়েছেন এই খেলা মাঠে এসে দেখার জন্য।
সর্বশেষ আপডেট ( বৃহস্পতিবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৭ )