মানবতা
-তানিয়া মিলি, ভার্জিনিয়া থেকে   
বৃহস্পতিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭

ও হে মানবতা আজ কোথা তুমি কেন এই নীরবতা ,
প্রভু তুমি কোথা খুঁজি হেথা হোথা উত্তর দেবে কে শুদ্ধতা ।

ফাঁপর চাপা বুকের পাজর গুমরে কাঁদে আঁধারে লূকীয়ে মূখ ,
শত্রুর উল্লাস চারদিকে হাহাকার বিনাশে ভারি এই বুক । চোখেড় কাণ্ণায় রক্তের বন্যা বুকের জমিনে পাষাণ চড়,
জীবন্ত মৃত্যু এ তো নয় কাম্য তবে সে কীসের ডর ।

শিশুর ও মুখের যীশুর ঐ হাসি যে নিলো আজ কেড়ে ,
মৃত্যুর মুখে পরোয়া কি বলো দিবো কি শত্রুকে ছেড়ে ।

ঘর ছাড়া দেশ ছাড়া স্বজন হারা খোঁজে উত্তর এ কোন নীতি ,
নারীর সম্ভ্রম করেছে বিভ্রম জালাও পোড়াও যতো দুর্নীতি ।

গগন বিদারী আর্তনাদে পাতাল ছিদ্রে অন্তরে বিদ্ধ করে ,
নিস্পাপ তাজা প্রানহীন দেহ কাপে তবু শত্রুর ডরে ।

শত্রুরা তো নিয়েছেই কেড়ে নিবে যা আছে আরো ,
বূঝে নেবো আজ যা আছে পাবার জুদ্ধে ঝাপিয়ে পরো ।

দেশ জাতি ধর্ম রাজনীতি যদি সব অপ শক্তির দাপটে চলে ,
মানবতা বিহীন টিকে থাকে বা কদিন বিনাশের অপ কৌশলে ।

সভ্য জাতিও সন্মান ভুলে তব যদি না সে সন্মান অন্যরে করে ,
কে দেখাবে কাহারে সন্মান যদি না নিজ গুনে সন্মান অর্জন করে ।

প্রবল অপশক্তির প্রয়োগ পরম পরাজয় সে তো সময়ের দাবী মাত্র ,
অতিতের ও রয়েছে হাজারো উদাহরন শিখিনী কি তবে এক ছত্র ।

ধর্মের দোহাই পাবেনা রেহাই নয় সে সেদিন বেশী দূরে ,
অমরত্বের সন্ধন খোঁজে যে জন মানবতা কে কলঙ্কিত করে ।

সবার উপরে মানুষ ও মনুষ্যত্ব উদিত অন্তিম এই সত্য ,
ধর্ম জাতি ভুলে ভেদাভেদ মানবতাই  হোক শান্তির মুল মন্ত্র ।
সর্বশেষ আপডেট ( বৃহস্পতিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭ )