দেশের গান নিয়ে নিউজ-বাংলার হৃদয় ছোঁয়া গানের আড্ডা
নিউজ-বাংলা ডেস্ক   
বুধবার, ০৫ এপ্রিল ২০১৭

যুক্তরাষ্ট্রের বসন্তের এক  নির্মল  সন্ধ্যায় ওয়াশিংটন ডিসি থেকে প্রকাশিত অনলাইন নিউজ-বাংলার  সাহিত্য এবং সাংষ্কৃতিক ফোরামের আয়োজনে গত ২৪শে  মার্চ বসেছিলো `গানের আড্ডা`। ঠিক যেন  একটি নিটোল কবিতার মতো। সুপাঠ্য, সুশ্রাব্য এবং হৃদয়গ্রাহী।  গ্রেটার ওয়াশিংটনের  প্রধানত: শিল্পীরাই অনুষ্ঠানে গান গেয়েছেন, গান নিয়ে কথা বলেছেন নিজস্ব ছন্দে ও আনন্দে।  



দিলশাদ চৌধুরী ছুটির  সঞ্চালনায় গানের এই আড্ডায় আমন্ত্রিত শিল্পীরা দেশের গান পরিবেশন করে। মাসটি ছিল স্বাধীণতার। তাই "মাটিরে আমার" শিরোনামে দেশ আর মুক্তির গান দিয়ে সাজানো হয় গানের ডালি।

 এ ছাড়া গানের ফাঁকে ফাঁকে  আসরে চলে কবিতা আবৃত্তি  । অনুষ্ঠানের শুরুতেই স্বাধীনতার মাস মার্চ কে স্মরণ করে "ধন ধান্যে" গানটি সমবেত কণ্ঠে গীত হয়।


দেশের গানের আড্ডা অনুষ্ঠানমালার আয়োজকদের পক্ষে  সোয়েব চৌধুরীর শুভেচ্ছা বক্তব্যের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সূচনা হয়। এরপর পরিচয় করিয়ে দেওয়া হয় টিমের সদস্য-আরিফুর রহমান, শাহ হাবিবুর রহমান, রোজিনা আক্তার রুণী এবং ডানিয়েল কুদ্দুসকে।
 

এই আসরে  গান করেছেন কামাল মোস্তফা, মেরিনা রহমান, অসীম রানা, ডরথী বোস রিমি, দিনার মনি, আনন্দ খান, শুক্লা গোমেজ, 'রোকসানা হুদা চন্দনা, দস্তগীর জাহাংগীর। মগ্নতায় সবার হৃদয়ের তরফের  তার যখন বাঁধা হয়ে গিয়েছে তখনই  কবিতা আবৃত্তি করেন  অদিতি সাদিয়া রহমান এবং শাহীন রহমান। শিল্পীত উচ্চারনে তাদের আবৃত্তি  কিছুক্ষনের জন্য হলেও শ্রোতারা সংগীতচ্যুত হয়ে কবিতাশ্রিত হয়েছিলেন। এরপর আবার গানের তরী বাইতে শুরু করলেন । সমবেত কন্ঠে শিল্পীরা পর পর ষোলটি দেশের গান পরিবেশন করে। গানগুলো ছিল দেশ, মাটি আর মুক্তিযুদ্ধের রক্তিম ছয়ায়। তাই খুবই হৃদয়গ্রাহী হয়ে উঠেছিল।  
 
 শ্রোতারা পিন-পতন নীরবতায় উপভোগ করেন। গানের ফাঁকে ফাঁকে কখনো বা গানের গীতি,সেই গানটির রচনা কাল, প্রেক্ষাপট, গানের তাল -সুর-রাগ   নিয়ে প্রাণবন্ত আলোচনায় মেতে ওঠেন। পল ফেবিয়ান গোমেজ অনুষ্ঠানে গীত সব গানের সঙ্গেই তবলা সংগত করেছেন ও

 

শব্দযন্ত্র নিয়ন্ত্রণ করেছেন শান্তুনু বড়ুয়া।  ফটো তুলেছেন বিপ্লব দত্ত এবং শামীম হায়দার। 

 

মঞ্চ সজ্জাতে ছিলেন আরিফুর রহমান।
 

গানের আড্ডার এই আয়োজন প্রসংগে  নিউজ-বাংলার সাহিত্য এবং সাংষ্কৃতিক ফোরামের সংগঠকরা বলেন  ভালো গান, তৃপ্ত শ্রোতা, শুদ্ধ সংস্কৃতি, নিউজ-বাংলার  প্রতিশ্রুতি। এই লক্ষ্যে পথ চলায় তারা সবার সহযোগিতা কামনা করেছে।

সংগীতের চর্চা ও বিকাশের এও পথে  যারা সহমত পোষণ করেন, নিউজ-বাংলা  তাদের সঙ্গে একযোগে কাজ করবে। সাংস্কৃতিক সুস্থতা বিনির্মাণে নিউজ-বাংলা সাহিত্য-সাংষ্কৃতিক ফোরাম সকলের সাহায্য প্রার্থনা করে।  শ্রোতাদের মনমুগ্ধতার  মাঝে  মননশীল এই অনুষ্ঠান আয়োজনের মধ্য দিয়ে গ্রেটার ওয়াশিংটনে শুদ্ধ শিল্প সংস্কৃতি চর্চ্চার যে আবহ তৈরী হচ্ছে তা অনন্য। সাহিত্য শিল্প সংস্কৃতির বানিজ্যিকিকরনের এই যুগে  সম্পূর্ন অলাভজনক,  সংস্কৃতি অনুশীলনের এই প্রচেষ্টা অনুকরনীয়।

সর্বশেষ আপডেট ( বুধবার, ০৫ এপ্রিল ২০১৭ )