মেরিল্যান্ডে স্বাধীনতা দিবসে সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা
সুবীর কাস্মীর পেরেরা   
শুক্রবার, ৩১ মার্চ ২০১৭

২৬ মার্চ, রবিবার মেরিল্যান্ডের সিলভার স্প্রিং শহরে হয়ে গেলো স্বধীনতা দিবসের সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা। 'প্রতিভার বিকাশ' নামে সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক ফোরাম প্রথমবারের মতো এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করে। মেট্রো ওয়াশিংটন এলাকার শিশু-কিশোরদের জন্য এই আয়োজনে তিনটি গ্রূপের ৩৮ জন শিশু- কিশোর অংশ নেয়।


ফোরামের ক-অর্ডিনেটর রুবি মার্গারেট রোজারিও তার স্বাগত ভাষণে বলেন প্রবাসে জন্ম নেয়া শিশুদের মাতৃ ভাষার চর্চা, বাংলা সংস্কৃতির সাথে পরিচয় এবং প্রবাসে বাংলাদেশকে তুলে ধরে আমাদের লক্ষ। তিনি অংশগ্রহণকারী শিশু-কিশোরদের উদ্দেশ্যে বলেন, দেশ স্বাধীন করার লক্ষে ৩০ লক্ষ বীর বাঙালি শহীদ হয়েছেন। তাদের প্রতি সবার বিশেষ সম্মাননা দেখানো উচিত।
ক, খ ও গ এই তিনটি গ্রুপে চিত্রাঙ্কন, বাংলা গান ও বাঙালি সাজে যেমন খুশি তেমন সাজ বিষয়ে সবার অংশগ্রহণ ছিল উল্লেখ করার মতো।
অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথি বাংলাদেশ খ্রিষ্টান এসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট মাইকেল খোকন রোজারিও অভিমত ব্যক্ত করে বলে, আগামী প্রজন্মের শিশুদের তার শেকড়কে পরিচয় করিয়ে দিতে ফোরাম যে ভূমিকা পালন করে যাচ্ছে তা নিঃসন্দেহে প্রশংসার দাবিদার।
বাঙালি-আমেরিকান খ্রিষ্টান এসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট স্ট্যানলি খোকন বলেন, আমাদের শিশুদের প্রতিভা বিকাশের লক্ষে সবার এক সাথে কাজ করে যেতে হবে।
বিসিএ কমিউনিটি কেয়ার ইউনিটের প্রেসিডেন্ট সুবোধ আর্থার রোজারিও বলেন, আজকের শিশু তাদের প্রতিভা গুণের মধ্যে দিয়ে দেশকে বিশ্ব দরবারে তুলে ধরতে হবে।
বিসিসিএস এর প্রেসিডেন্ট বাবলু কস্তা, ফোরামের যেকোন কাজে সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস দিয়ে বলেন, যেকোন ভালো কাজে আমরা আছি এবং থাকবো।
অনুষ্ঠানে শিশু-কিশোরদের ছাড়া অভিভাবক ও বিপুল দর্শকের সমাগম ঘটে।


বনি লিওনার্ড পালনের তত্বাবধানে স্টেফানি, জেরিন, প্রিয়াংকা ও আইভেন সাবলীল উপস্থাপনা ও ধারা বর্ণনায় দেশের ইতিহাস তুলে ধরে। রাতে বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার তুলে দেন, খোকন মাইকেল, রুবি মার্গারেট, স্ট্যানলি খোকন, সুবোধ আর্থার ও বাবলু কস্তা।
ক, খ ও গ গ্রুপ যারা ভিবিন্ন বিষয়ে বিজয়ী হয়েছে, বৃষ্টি, এরিকা, সৈকত, অনন্ত, পিটার,এঞ্জেলিনা শ্যারোল   সিনথিয়া,এন্থোনিয়া,মেঘা,ত্রপা,অর্চি,স্টেফানি,এমি,এলিজাবেথ,ক্যারিনা,সান্ড্রা,রীতি,
অরিত্র, ও জয়িতা। অতিথিগণ বিজয়ীদের মাঝে ক্রেস্ট তুলে দেন। যারা বিজয়ী হতে পারেনি তাদেরকে দেয়া হয় বিশেষ পুরস্কার মেডেল। অনুষ্ঠানে শেষ মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেন এক সময়ের বাংলাদেশ টেলিভিশন তালিকাভুক্ত সংগীত শিল্পী কালাচাঁদ সরকার। দলীয় সংগীত পরিবেশন করেন স্থানীয় শিল্পীবৃন্দ। বিশেষ নৃত্য পরিবেশন করে, সিনথিয়া ও তার নৃত্যদল।


সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় সার্বিক ব্যাবস্থাপনায় ছিলেন বিপুল এলিট গনছালভেস। প্রতিযোগিতার বিচারক ছিলেন কালাচাঁদ সরকার, আবু রুমি, শফি দেলোয়ার কাজল ও শেখ মাওলা মিলন। মিডিয়া পার্টনার বিডি খ্রিষ্টান নিউজ ও নিউজ বাংলা।
সুবীর কাস্মীর পেরেরা
সিলভার স্প্রিং, মেরিল্যান্ড, যুক্তরাষ্ট্র

সর্বশেষ আপডেট ( শুক্রবার, ৩১ মার্চ ২০১৭ )