ইফতারে শসা খেজুর দই
নিউজ-বাংলা ডেস্ক   
শনিবার, ০৪ জুলাই ২০১৫

অনেকদিনের অভ্যাসে সারাদিন রোজা রাখার পর  শসা, খেজুর এবং দই  অনেকেরই  ইফতারের সাথে খাওয়া হয়। তবে অনেকেই হয়ত জানেন না এসব স্বাস্থ্যের জন্য কতটা উপকারী। শসা
সবচেয়ে স্বাস্থ্যকর খাদ্য এই রোজায়, গরমে ইফতারে শসা খান আর তরতাজা বোধ করুন। আর এর উপকারিতা জানার পর তো শসার প্রেমেই পড়ে যাবেন! -  শসায় থাকে প্রচুর পানি। প্রায় শতকরা ৯৬ ভাগ পানিসমৃদ্ধ ১টি শসা আপনাকে দুই গ্লাস সমান পানি সরবরাহ করবে।

- শসায় থাকে প্রচুর ভিটামিন- এ, বি, সি এবং কে। আরও আছে মিনারেল-ম্যাংগানিজ, পটাসিয়াম, কপার, মলিবডেনাম। শসার এই ভিটামিন আর ম্যাংগানিজ কাজ করে কার্যকর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট হিসেবে।

- শরীরের বিভিন্ন প্রদাহের বিরুদ্ধে কাজ করে শসা।
- যদিও এখনও গবেষণা পর্যায়ে আছে তাও বিজ্ঞানীরা প্রায় নিশ্চিত যে শসা ব্রেস্ট, ইউটারাস, প্রোস্টেইট, ওভারিয়ান ক্যান্সারের বিরুদ্ধে কার্যকর ভূমিকা রাখে।

- হজমে সাহায্য করে।

- ওজন নিয়ন্ত্রণে ভুমিকা রাখে। কারণ এতে থাকে কম ক্যালোরি আর প্রচুর ফাইবার।

- শরীরের খারাপ চর্বি কমিয়ে আনে।

- রোদেপোড়া চামড়ায় শসা লাগালে ক্ষতি কমে এবং আরাম হয়!

খেজুর

একটি অসাধারণ ফল। পুষ্টিগুনে ভরপুর এই ফল হোক প্রতিদিনের ইফতারের সঙ্গী। জেনে নিন খেজুরের উপকারিতা।

- ডেক্সট্রোজ এবং ফ্রুক্টোজ হল খেজুরের দুই শর্করা। যা অতি দ্রুত আপনাকে শক্তি দেয়।

- সারাদিনের অভুক্ত পাকস্থলী কে তৈরী করে খাবার গ্রহণর জন্য।

- খেজুরে আছে ভিটামিন এ, বি কমপ্লেক্স, সি, কে। ভিটামিন এ, সি এবং কে- কাজ করে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট হিসেবে। ভিটামিন বি কমপ্লেক্স মস্তিষ্ক শক্তিশালি করে। পাশপাশি ত্বক করে সুন্দর।

- এতে কোনো ফ্যাট নেই। শুধু তাই নয়, খেজুর ক্ষতিকর কোলেস্টেরল পরিশোষণ করতেও বাধা দেয়।

- এতে আছে পটাশিয়াম, কপার, আয়রন, সোডিয়াম ইত্যাদি। যা শরীরের লবণ ঠিক রাখে, রক্ত তৈরিতে সাহায্য করে।

- রোজায় খাদ্যাভ্যাস পরিবর্তনের জন্য কোষ্টকাঠিন্য হতে পারে, খেজুর এর থেকে মুক্তি দেয়।

- খেজুরের আছে অ্যান্টিক্যানসার ও অ্যান্টি-ইনফ্লামেটরি গুন।

- গর্ভাবস্থায় খেজুর খাওয়া খুবই ভালো।

দই

- দই হজম হয় খুব তাড়াতাড়ি। এটি পাকস্থলির পরিবেশ ভালো রাখে আর, এর পিএইচ মাত্রা ঠিক রাখে।

- যাদের দুধ হজম হয় না, তারা নিশ্চিন্তে দই খান।

- দইয়ে থাকে প্রচুর ক্যালসিয়াম যা দাঁত ও হাড় শক্ত করে।

- দইয়ে থাকে ভালো ব্যাকটেরিয়া, যা রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।
 
- যাদের বদহজমের সমস্যা আছে, দই তাদের জন্য খুবই ভালো।

- স্বাস্থ্যকর ত্বক ও চুলের জন্যও চাই দই।

- ওজন কমাতে খান দই।

- সর্বোপরি শরীর ঠাণ্ডা রাখে দই।
সর্বশেষ আপডেট ( শনিবার, ০৪ জুলাই ২০১৫ )