মূলপাতা arrow খবর arrow প্রবাস arrow মেট্রো ওয়াশিংটন-এ বর্ষবরণ
মেট্রো ওয়াশিংটন-এ বর্ষবরণ প্রিন্ট কর
সুবীর কাস্মীর পেরেরা   
সোমবার, ২৯ মে ২০১৭

দুই মাস পরে হলেও বৈশাখী আমেজে মেট্রো ওয়াশিংটন এলাকার সিলভার স্প্রিং শহরের একটি স্কুল অডিটোরিয়ামে নব বর্ষবরণ ও বৈশাখী মেলা আয়োজন করা হয় । ২১ মে সন্ধ্যা ৭ ঘটিকায় বাংলাদেশ খ্রীষ্টান এসোসিয়েশন এর সহ-সাধারণ সম্পাদক মারিও মন্ডল এর উপস্থাপনায় শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদা করেন সংগঠনের সভাপতি মাইকেল খোকন রোজারিও।
রনক মার্টিন ও রাখি ফ্লোরেন্স এর পরিকল্পনায় সুসজ্জিত মঞ্চে এবারের অনুষ্ঠামালা সাজানো হয়েছিল ভিন্ন আঙ্গিকে।

বনি লিওনার্ড পালমা, রাখি ফ্লোরেন্স রোজারিও ও রেশমা হিল্ডা রোজারিও এর প্ৰাণৱন্ত-রসাত্বক উপস্থাপনই স্থানীয় শিশু-কিশোর ও শিল্পীগণ সাংস্কৃতিক প্রতিভা উপস্থাপন করেন।
অনুষ্ঠানে একক নৃত্য পরিবেশন করে সৃষ্টি নৃত্যাঙ্গনের শিশু শিল্পী এঞ্জেলিনা কোরাইয়া। কোরিওগ্রাফিতে ছিলেন রোজমেরী মিতু গনছালভেস। শিল্পী গ্লোরিয়া রোজারিও এর পরিচালনায় ও কোরিওগ্রাফিতে মঞ্জুরি নৃত্যালয়ের পিটার, মনীষা,স্যান্ড্রা, রীতি ও শ্যারোল এর অসাধারণ নৃত্য দর্শকদের মুগধ করে। এছাড়া শিল্পী গ্লোরিয়া রোজারিও কোরিওগ্রাফিতে আরো একটি নৃত্যে অংশগ্রহণ করে সামান্তা রোজারিও ও এলিজাবেথ পালমা।

সিনথিয়া গোমেজ এর কোরিওগ্রাফিতে সিনথিয়া ড্যান্স গ্রূপ একটি নৃত্য পরিবেশন করে। জমেরী মিতু গনছালভেস এর কোরিওগ্রাফিতে সৃষ্টি নৃত্যাঙ্গনের ছোট শিশু শিল্পীরা নাচের মাধ্যমে দর্শকদের মাতিয়ে রাখে।


অনুষ্ঠানের এক পর্যায়ে দলীয় সংগীত দলের অতিরিক্ত দলীয় গানের কারণে দর্শকদের মধ্যে বিরুক্তি প্রকাশ ঘটলেও পরে বিপুল এলিট গনছালভেস এর পরিকল্পনা, সুকুমার পিউরীফিকেশনের নির্দেশনা ও মুক্তা মেবেল রোজারিও এর সঙ্গীত পরিচালনায় অডিটোরিয়ামে ভিন্ন আবহের সৃষ্টি হয়। 'লালন সন্ধ্যা' শিরোনামে এই লালন গানের আসর দর্শকদের নিয়ে যায় চিরচেনা সোনার বাংলার লালনের আসরে। মঞ্চে কৃত্তিমভাবে মোমবাতি জ্বালিয়ে আলো-আঁধারী পরিবেশে লালন গান পরিবেশন করেন, মুক্তা মেবেল রোজারিও, নির্মল এল গোমেজ , ঐশী মুর্মু ও মেঘা পিউরিফিকেশন। বাদ্যযন্ত্রে অংশ নেন বাঁশের বাঁশি শীতল গ্রেগরী পেরেরা, জিপসি ডেনিস ডমিনিক রোজারিও, খঞ্জনী চৈতি কোরাইয়া, আইরিন পিউরিফিকেশন, জিনিয়া গনছালভেস, মন্দিরা অতুল পিউরিফিকেশন দূতরা নির্মল এল গোমেজ এবং ধারা বর্ণনায় ছিলেন বিপুল এলিট গনছালভেস।
বিভাস ফ্রান্সিস রোজারিও এর পরিকল্পনা ও পরিচালনায় বাঙালি সাজে বাংলা গানের মূর্চ্ছনায় বাংলা ফ্যাশন শো পরিবেশন করা হয়। কৃষক-বাউল-গ্রাম্য বধূ, সেজে মঞ্চে আসেন মেঘা, এঞ্জেলিনা,এরিকা,জেরিন, জয়িতা, অতুল-আইরিন, বিপুল-জিনিয়া,ব্যালেরিনা-নিক্সন,মারিও-প্রিয়াংকা,শ্যামল-রুমা, লরেন্স-জেসিকা ও  প্রকাশ-চৈতি।
একক সঙ্গীত পরিবেশন করে পিয়াল রিচার্ড রোজারিও।
অনুষ্ঠানের পাশাপাশি ছিল নিজেদের তৈরী নানা ধরণের বাংলা খাবারের আয়োজন। নিজস্ব উদ্যোগে এসোসিয়েশনের সদস্য-সদস্যবৃন্দ খাবার সরবরাহ করেন। খাবারের ম্যানুতে ছিল, ভর্তা, ভাজি, ডাল, মাছ-ভাত, পিঠা, মিষ্টান্ন, ও পান-সুপারি।
হলের বাইরে শাড়ি গহনার পসরা সাজিয়ে বসেছিল স্থনীয় ব্যবসায়ীগণ।
অনুষ্ঠানের শেষ পর্যায়ে ছিল লটারি ড্র ও রাতের খাবার।
মেলায় আগত অতিথিরা বলেন, এবারের আয়োজনে ভিন্ন মাত্রা থাকায় অনুষ্ঠান ছিল উপভোগ্য ও আকর্ষণীয় । তাদের মতে বর্ষবরণ অনুষ্ঠান সঠিক সময়ে করলে অনুষ্ঠানের সার্থকতা বৃদ্ধি পাবে।
 
সুবীর কাস্মীর পেরেরা
মেট্রো ওয়াশিংটন , মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র

সর্বশেষ আপডেট ( সোমবার, ২৯ মে ২০১৭ )
 

Add comment


Security code
Refresh

< পূর্বে   পরে >
Free Joomla Templates