News-Bangla - নিউজ বাংলা - Bangla Newspaper from Washington DC - Bangla Newspaper

২০ নভেম্বর ২০১৭, সোমবার      
মূলপাতা
"পাল্কী"র গ্র্যান্ড স্পন্সর পিপল এন টেক প্রিন্ট কর
নিউজ-বাংলা ডেস্ক   
বৃহস্পতিবার, ০৪ মে ২০১৭

আগামী ১৯-২০শে আগষ্ট অনুষ্ঠতব্য বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অব আমেরিকা ইঙ্ক (বাই) নিবেদিত নাটক- "পালকি"র গ্র্যান্ড স্পন্সর হলেন  উত্তর আমেরিকার তথ্যপ্রযুক্তি (আইটি) বিষয়ক প্রতিষ্ঠান পিপল এন টেক। পিপল এন টেক (An Institute of Information & Technology) । সম্প্রতি বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অব আমেরিকা ইঙ্ক (বাই) এবং পিপল এন টেকের সাথে একটি  সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষর হয়। পিপল এন টেকের  Spring Hill Rd, Vienna, VA 22182স্থ কর্পোরেট অফিসে এই চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন "বাই" এর সভাপতি সফি দেলোয়ার কাজল এবং পিপল এন টেকের সিইও ইঞ্জিনিয়ার আবু বক্কর হানিপ।  এই সময় উপস্থিত ছিলেন "বাই" এর সহ সভাপতি কামরুল খান লিঙ্কন এবং পরিচালক মিজানুর রহমান ভুইয়া। চুক্তি অনুযারী "পাল্কী"র প্রচারনা এবং মঞ্চায়নের সময় "পিপল এন টেক" এর সর্বোচ্চ প্রচারনা চালনা হবে বিনিময়ে পিপল এন টেকের পক্ষ থেকে নাটকটি মঞ্চায়নে আর্থিক সহযোগিতা সহ লজেস্টিক সহায়তা প্রদান করবে। এ ছাড়া পাল্কীর টিকেটের সাথে নম্বরের র‍্যাফেল ড্রতে বিজয়ীকে পিপল এন টেকের পক্ষ থেকে শত ভাগ স্কলারশীপ প্রদান করবে। ফলে তিনি কিংবা তার মনোনীত একজন বিনা মূল্যে পিপল এন টেকে আইটি
  প্রশিক্ষনের সুযোগ পাবে।  পাল্কীর ৪র্থ শোর আগে ‘উইনার কার্ড’ দেওয়া হবে। বিজয়ী ভাগ্যবান  পিপল এন টেকে  বিনামূল্যে প্রশিক্ষণ নেবেন।

উল্লেখ্য যে আইটি প্রতিষ্ঠান ‘পিপল এন টেক’ ২০০৪ সালে আমেরিকায় যাত্রা শুরু করে। এর প্রধান লক্ষ্য ছিল  আমেরিকায় পাড়ি জমানো তরুণ-তরুণীদের প্রযুক্তিতে দক্ষ করে গড়ে তোলা এবং চাকরির বাজারে তাদের উপযোগিতা তৈরি করা। আমেরিকায় স্বপ্ন বুনতে  আসা অনেকেই সুযোগের অভাবে সামান্য বেতনে চাকরি করতে বাধ্য হতেন। সেই   ম্রীয়মান জনশক্তিকে তথ্যপ্রযুক্তি (আইটি)তে প্রশিক্ষন দিয়ে উচ্চ বেতনে চাকুরীর সুযোগ তৈরী করে দিয়েছে।  এরই মধ্যে কয়েক হাজার তরুণ-তরুণী পিপল এন টেকের সাহায্যে ঘুরে দাঁড়াতে সক্ষম হয়েছেন। প্রবাসীরা নতুন জীবন খুঁজে পাচ্ছেন।
 
অনাড়ম্বর এই অনুষ্ঠানে পাল্কীর স্ত্রীপ্ট  রাইটার সফি দেলোয়ার কাজল বলেন পাল্কী  "বাই" পরিবেশিত তৃতীয় নাটক।  এর আগে "ঘুড়ি" এবং "ঢেউ" এর দারুন সাফল্য এবং জনপ্রিয়তা লাভ করে।  একটি ষোড়শী মেয়ের জীবন রহস্য  আর স্বপ্ন  ঘিরে গড়ে উঠেছে "পাল্কী"র কাহিনী। তবে বলতে যতটা সহজ লাগছে, পাল্কীর কাহিনী তার চেয়েও বেশী চমকপ্রদ এবং রহস্যাবৃত। নাটকটি না দেখা পর্যন্ত এই রহস্য বোঝা যাবে না। বাংলাদেশের শহরতলীতে হিজলতলী গ্রামের ইছামতি নদীর পারে মাষ্টার বাড়ীর দুই মেয়ে শিমূল এবং পালকি। দুই বোনের জীবনের হাসি-কান্না, আনন্দ বেদনার এক রূপ কল্প নাটক-পাল্কী। তবে এর কাহিনী বিন্যাসে ষোড়শী পাল্কীর জীবনের নানা বাঁক-ই ফুটে উঠেছে । পাল্কীর জীবনের দুরন্তপনা, ছেলে মানুষী, জীবনের কাছে তার চাওয়া-পাওয়া, তার ভাবনা, তার স্বপ্ন, সব কিছুই ফুটে উঠেছে পাল্কীর কাহিনীতে। আমরা যেমন এই নাটকের মধ্য দিয়ে পাল্কীর স্বপ্নকে জাগিয়ে তুলেছি। তেমনি এই স্বপ্নের ভিতরে আরেক স্বপ্নের বীজ বোপন করেছি। সাথে সাথে পাল্কী নাটকে বিস্তৃত হয়েছে আমাদের সম্পর্কের বিষয়গুলি। মা-মেয়ের সম্পর্ক, বোন-বোনে , বাবা-মেয়ে, এবং মানুষে-মানুষে, বিশেষ করে ভালবাসা-ভাললাগার মানুষের সম্পর্ক। এই সম্পর্কের মাঝেই প্রকাশিত এবং বিকশিত হয়েছে আবেগ, ভালবাসা, রাগ-অনুরাগ, আনন্দ-বেদনা, আশা-অনুশোচনা এবং  কৃতজ্ঞতা প্রকাশের এক নিরন্তন প্রচেষ্টা।  আমরা দায়িত্ব নিয়ে বলছি ঘুড়ি এবং ঢেউ এর পর পালকিও আপনাদের ভরিয়ে দেবে মন। তিনি বলেন অন্যান্য মাধ্যমের সাংষ্কৃতিক অনুষ্ঠানের চেয়ে নাটক একটি সময় সাপেক্ষ ব্যায়বহুল প্রযোজনা।  তাই গ্রেটার ওয়াশিংটন বাংলাদেশী কমিউনিটির  সকলের সহযোগিতা একান্ত প্রয়োজন।  

পাল্কীর পরিচালক কামরুল খান লিঙ্কন বলেন পাল্কী গতানুগতিক কোন সাধারন মঞ্চ নাটক নয়। এটা সর্বোচ্চ প্রযুক্তি নির্ভর একটি সিনেমেটিক ড্রামা। লাইভ এবং স্ক্রীন শটের মিশ্রনে ভিজিয়্যুল ইফেক্টের মাধ্যমে নাটকটিকে অন্য মাত্রায় নিয়ে যাওয়া হবে। নাটকটির কারিগরী সহযোগিতা দিচ্ছে ক্যালিফোনিয়া ইউনিভার্সিটি, ভার্জিনিয়া ইউনিভার্সিটির ড্রামা বিভাগের ছাত্র/ছাত্রীরা।  পাল্কী নাটকের নাম ভূমিকায় অভিনয় করছে সবার পরিচিত, সবার প্রিয় ওয়াশিংটনের তরুন প্রতিভাময়ী নৃত্যশিল্পী সামারা এলাহী। উল্লেখযোগ্য একটি চরিত্রে থাকছে অদিতি চৌধুরী, তৌফিক হাসান, নুসরাত শোমা,  সফিকুল ইসলাম,  প্রনব বড়ুয়া প্রমুখ।

পিপল এন টেকের সিইও আবু হানিপ বলেন শুধু বানিজ্যিক কারনে নয়, সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে আমরা "বাই" এবং পাল্কীর সাথে কাজ করছি। এর আগে "ঘুড়ি" নাটকেও আমরা বাই এর সাথে কাজ করেছি। এ ছাড়া বাই এর সাথে আর্থিক অস্বচ্ছল  ব্যক্তিদের জন্য স্কলারশীপ পার্টনার হিসাবেও আমরা কাজ করেছি। পিপল এন টেক প্রসংগে জনাব আবু হানিপ বলেন বাংলাদেশ থেকে যারা প্রথম আমেরিকায় আসেন তাদের সমস্যা  হচ্ছে  তারা কি করবেন, কোথায় যাবেন। যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও তারা জানেন না তাদের স্বপ্ন কিভাবে পূরণ করবেন। তাদের সেই স্বপ্নের সিঁড়ি তৈরি করে দিয়েছে আমরা পিপল এন টেক এর মাধ্যমে ।  তিনি বলেন ‘আর নয় অড জব’শ্লোগানের মাধ্যমেই আমরা তৈরী করছি  স্বপ্নে পৌঁছানোর এ সিঁড়ি । আর এই সিড়ির নাম‘পিপল এন টেক’। তিনি "বাই" পরিবেশিত নাটক- "পাল্কী"র জন্য শুভ কামনা করেন।


 
সর্বশেষ আপডেট ( বৃহস্পতিবার, ০৪ মে ২০১৭ )
 

Add comment


Security code
Refresh

< পূর্বে   পরে >

পাঠক পছন্দ

লগইন বক্স






পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?
সদস্য হতে চাইলে রেজিস্টার করুন

A professional services and  IT training firm.
 
  

 DETAILS 

 

 Details

Details 

Details 

 Click here for details

 

 Details 

  Details

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 অন্যান্য পত্রিকা



 


 

 

বাচিক শিল্পী কাজী আরিফের সাথে একটি অনন্য সন্ধ্যা


আমেরিকাতে এখন গ্রীষ্মের শেষ লগ্ন। হেমন্তের (ফল)এর আগমনীর প্রাক্কালে সেদিনের অপরাহ্নটি ছিল সিগ্ধ শ্যামল। গত ১১ই সেপ্টেম্বরের  এমনি এক সোনালী রোদেলা বিকেলে
ভার্জিনিয়া রাজ্যের  স্টারলিংস্থ সিনিয়র সিটিজেন সেন্টারে অনুষ্ঠিত হল দেশ বরণ্য আবৃত্তি শিল্পী কাজী আরিফের আবৃত্তি সন্ধ্যা।

বিস্তারিত ...
 

২রা এপ্রিল শংকর চক্রবর্তীর মনোজ্ঞ সংগীত সন্ধ্যা


আগামী ২রা এপ্রিল  রবিবার  বিকেল চারটায় ভার্জিনিয়ার স্প্রিংফিল্ডস্থ কমফোর্ট ইন হোটেলে অনুষ্ঠিত হবে  বরণ্য  নজরুল গীতি, গজল এবং হারানো দিনের আধুনিক বাংলা গানের গুনী  শিল্পী  শংকর চক্রবর্তীর একক  সংগীতানুষ্ঠান। সঙ্গত আর সংগীতের অসাধারণ ঐকতানে শংকর চক্রবর্তীর এই মনোজ্ঞ সংগীতের আসরটি  বেশ বৈচিত্র্যপূর্ণ ভাবে সাজানো হচ্ছে। দর্শক শ্রোতারা দারুন ভাবে উপভোগ করবে বলে আশা করা যাচ্ছে।

বিস্তারিত ...
 

কি কখন কোথায়


No events

মতামত জরিপ

Why do you visit News-Bangla
 
 
Free Joomla Templates