মূলপাতা arrow খবর arrow প্রবাস arrow বিএনপি গ্রেটার ওয়াশিংটন ডিসির ৪৬তম স্বাধীনতা দিবস উদযাপন
বিএনপি গ্রেটার ওয়াশিংটন ডিসির ৪৬তম স্বাধীনতা দিবস উদযাপন প্রিন্ট কর
সামসুদ্দিন, ভার্জিনিয়া থেকে   
বুধবার, ০৫ এপ্রিল ২০১৭

শতাধিক প্রবাসী বাংলাদেশীর উপস্থিতিতে বিএনপি গ্রেটার ওয়াশিংটন ডিসির উদ্যোগে গতকাল ২ এপ্রিল ২০১৭ স্বাধীনতার ৪৬ তম বার্ষিকী আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয় ভার্জিনিয়ার ফলচার্চের কাবাব কিং রেস্টৃরেন্টে।

 

সংগঠনের সহ সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার শাহাদাত হোসেন সোহরাওয়ার্দির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠান পরিচালনা ও সার্বিক তত্বাবধানে ছিলেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী এবং সংগঠনের সাধারন সম্পাদক এজেএম হোসাইন এবং তাকে সহযোগিতা করেন যুগ্ম সাধারন সম্পাদক তারিকুল ইসলাম অশ্রু ও সাংগঠনিক সম্পাদক নাজমুল হক। প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের প্রধান উপদেষ্টা বিশিষ্ট সমাজ সেবক জহির খান। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ডঃ হুমায়ুন খালেদ, জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের নেত্রী ফায়জুন নাহার লীনা, সংগঠনের সহ সভাপতি সামছুদ্দীন মাহমুদ, মাসুদুর রহমান, মিয়া মজনু, ম্যারিল্যান্ড বিএ্নপির সভাপতি জনাব নাছের আহমেদ এবং বিশিষ্ট মুক্তিযোদ্ধা টিএম শহীদুল্লাহ। অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ফিরোজ আলম, জাকির আহমেদ, মোহাম্মদ শাহরিয়ার রহমান, ফারুক আহমেদ, মেহেদী হাসান, জামাল উদ্দিন, আবদুস সবুর জুয়েল প্রমুখ। অনুষ্ঠানে সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন মোহাম্মদ হোসাইন, কামাল পাশা, তৈয়বুর রহমান, রাসেল আহমেদ, মোঃ আলামীন, নাসির আহমেদ, মোকলেসুর রহমান লিটন, সোহেল আহমেদ রেজা, ফরহাদ হোসেন, শাহাদাত হোসাইন, রাজু হাসান, শফিউল সর্দার প্রমুখ।  প্রধান অতিথি জহির খান বলেন, বাংলাদেশে বর্তমানে কেবল স্বৈরশাসন নয় একনায়কত্ব কায়েম হয়েছে। জনগনের কথা বলার কোন স্বাধীনতা নেই হত্যা, গুম, খুন ধর্ষণ এমন পর্যায়ে পৌছেছে তা শেখ মুজিবের সাড়ে তিন বছরের শাসনকালের কথা আমাদের স্বরণ করিয়ে দেয়। তিনি অবৈধ হাসিনা সরকারের পতনের জন্য সকল ভেদাবেধ ভুলে ঔক্যবদ্ধ আন্দোলনের কথা বলেন। সংগঠনের সাধারন সম্পাদক ও বিশেষ বক্তা এজেএম হোসাইন তার বক্তব্যে বর্তমান আওয়ামী লীগের দুঃশাসনের বিভিন্ন সচিত্র প্রতিবেদন তুলে ধরে উল্লেখ করেন, সম্প্রতি তিনজন বিএনপির নির্বাচিত মেয়রকে বরখাস্ত করা হয়েছে।অবৈধরা নির্বিগ্নে ক্ষমতা দখল করে আছে আর বৈধদের বরখাস্ত করা হয়েছে এই হল অবৈধ হাসিনার শাসন। তিনি বলেন জোর করে ক্ষমতা ধরে রাখার ইতিহাস বিশ্বে নেই। শেখ হাসিনার এ ইতিহাস থেকে শিক্ষা নিয়ে দ্রুত পদত্যাগ করে নিরপেক্ষ নির্বাচন প্রদানের আহবান জানান। বিশেষ অতিথি ফারহানা লিনা অবৈধ হাসিনা সরকারের পতনের জন্য জনতার আন্দোলনের উপর গুরত্বারোপ করেন। বিশেষ বক্তা সামছুদ্দীন মাহমুদ তার বক্তব্যে ভারতের সংগে আগামী মে মাসে এ সরকারের আরো একটি গোলামী চুক্তির বিষয়ে সতর্ক থাকার আহবান জানিয়ে বলেন, বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে কারো অধীনে থাকার জন্য নয় প্রয়োজনে আরেকটি মুক্তিযুদ্ধের মা্ধ্যমে বাংলাদেশের জনগন ভারতীয় এসকল চক্রান্ত এবং এদেশীয় তাদের দোশরদের প্রতিহত করবে। অন্যান্য বক্তারা শহীদ জিয়ার স্বাধীনতার ঘোষনা এবং তার কর্মময় জীবনের উপর আলোকপাত করেন। বর্তমান আওয়ামী দুঃসাশনের বিভিন্ন সচিত্র প্রতিবেদন, এবং ঔক্যবদ্ধ আন্দোলন এর মাধ্যমের নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য সরকারকে বাধ্য করার উপর গুরুত্বারোপ করেন। সর্বশেষ নৈশ ভোজের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয়। 

সর্বশেষ আপডেট ( বুধবার, ০৫ এপ্রিল ২০১৭ )
 

Add comment


Security code
Refresh

< পূর্বে   পরে >
Free Joomla Templates