News-Bangla - নিউজ বাংলা - Bangla Newspaper from Washington DC - Bangla Newspaper

১৪ ডিসেম্বর ২০১৭, বৃহস্পতিবার      
বাচিক শিল্পী কাজী আরিফের সাথে একটি অনন্য সন্ধ্যা প্রিন্ট কর
নিউজ-বাংলা ডেস্ক   
শুক্রবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৬

আমেরিকাতে এখন গ্রীষ্মের শেষ লগ্ন। হেমন্তের (ফল)এর আগমনীর প্রাক্কালে সেদিনের অপরাহ্নটি ছিল সিগ্ধ শ্যামল। গত ১১ই সেপ্টেম্বরের  এমনি এক সোনালী রোদেলা বিকেলে
ভার্জিনিয়া রাজ্যের  স্টারলিংস্থ সিনিয়র সিটিজেন সেন্টারে অনুষ্ঠিত হল দেশ বরণ্য আবৃত্তি শিল্পী কাজী আরিফের আবৃত্তি সন্ধ্যা।


 শব্দকে জীবিত করে কবিতার জীবন্ত ছবি আঁকেন কাজী আরিফ। শিমুল মুস্তফাসহ আরও অনেক বাচিক শিল্পিকে তিনি তৈরি করেছেন নিজের হাতে। সেই জীবিত কিংবদন্তী  আবৃত্তি শিল্পী মুখোমুখী হলেন গ্রেটার ওয়াশিংটনের  কবিতা প্রেমিক  প্রবাসী বাংগালীদের।  
এই প্রানবন্ত সন্ধাটির আয়োজক ছিলেন জনাব আরিফ ইখতেখার। আবৃত্তি শিল্পকে  সেদিনের পরিচ্ছন্ন আকাশের  দিগন্ত ছুঁইয়েছেন কাজী আরিফ। তার প্রানবন্ত আবৃত্তির মধ্য দিয়ে তিনি বলেছেন  জীবনের কথা,  প্রেমের কথা , বিরহের কথা , দ্রোহের কথা । কখনবা বিকশিত হয়েছে  শান্তির কথা , যুদ্ধের কথা । কাজী আরিফের  কবিতার মধ্য  সঙ্কলিত হয়েছে  আমাদের মন আর মননশীলতার  এক অনন্য দিগন্ত!  এই কবিতার নরম ছোঁয়ায়  আমরা প্লাবিত হয়েছিলাম  শনিবারের এই বিকেলে যার মধ্যমণি ছিলেন বাংলাদেশের আবৃত্তি জগতের প্রাণপুরুষ, জীবন্ত কিংবদন্তী, বিশিষ্ট বাচিকশিল্পী কাজী আরিফ!

শামীম চৌধুরীর সঞ্চালনে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক কবিতাপ্রেমীর উপস্থিতিতে কাজী আরিফের নান্দনিক আবৃত্তি উপস্থিত সবার মন জয় করেছে। শুরুতেই   কবি এবং ভয়েস অফ আমেরিকার বিশিষ্ট সাংবাদিক এবং এক সময়ে বাংলাদেশ বেতারে কাজী আরিফের সহকর্মী আনিস আহমেদ তাঁর সম্পর্কে স্মৃতিচারণ করেন।   কবিতাপ্রেমীরা।  কবিতা আর গানের সমন্বয়ে  এই পর্বে আরো  অংশ গ্রহন করে  মেরীল্যান্ড প্রবাসী ওপার বাংলার বিশিষ্ট রবীন্দ্রসঙ্গীত শিল্পী কুমকুম বাগচী।  

অদিতির আবৃত্তি,  এপার বাংলার কামাল মোস্তফা এবং  ওপার বাংলার কুমকুম বাগচীর  কখনো একক আর কখনবা  দ্বৈত পরিবেশনার সাথে কাজী আরিফের মনোমুগ্ধকর আবৃত্তির অপূর্ব নির্যাসে অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বটি ছিল মনমুগ্ধকর।  পিনপতন নিস্তব্ধতায় উপস্থিত শ্রোতৃমণ্ডলী সেটা উপভোগ করেন আনন্দ চিত্তে। এই পর্বে  গান আর কবিতার সাথে  বাঁশী শিল্পী মাজেদের  মোহনীয় বাঁশীর সূরে অনুষ্ঠানটি আরও আকর্ষণীয় হয়ে উঠেছিল। অদিতির কবিতার সাথে  আবহ সংগীত পরিচালনায়  ছিলেন  রায়হান এলাহী।

অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বটি   ছিল  আলাপচারিতায় কাজী আরিফের নিজস্ব  কথনের সাথে তাঁর অনবদ্য আবৃত্তি । আলাপচারিতার সাংষ্কৃতিক পরিমন্ডলে তাঁর বেড়ে উঠা, তাঁর বাচিক শিল্পী হিসাবে গড়ে উঠা, জীবনের বিভিন্ন পর্যায় বিশেষ করে মহান মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচারণা এবং সর্বোপরি  জীবন এবং জীবিকা, মানব এবং  মানবিকতার এক  স্মরণীয় স্মৃতির স্মারক হিসাবে সকলের হৃদয়ে এক অন্যরকম অনুভূতির পরশ বুলিয়ে দেয় এই পর্বে তাঁর আবৃত্তি এবং একান্ত আলাপচারিতা। অনুষ্ঠানের শেষ পর্যায়ে  কবি আনিস আহমেদ তাঁর সর্বশেষ প্রকাশিত কবিতার বইয়ের একটি কপি কাজী আরিফকে উপহার দেন!
 সবশেষে কাজী আরিফের সাথে উপস্থিত সবার ব্যক্তিগত কুশল বিনিময়, স্মরণীয় স্মৃতি হিসেবে ধরে রাখার জন্য অতিথির সাথে ছবি তোলায় ব্যস্ত হয়ে ওঠেন সবাই। অনন্য সুন্দর,  স্মরণীয় একটা কবিতাসন্ধ্যার রেশ নিয়ে সবাই বাড়ি ফেরেন। নুষ্ঠানের  শব্দযন্ত্রের নিয়ন্ত্রনে  ছিলেন কামাল মোস্তফা আর শান্তনু বাগচী।

সব শেষে অনুষ্ঠানের আয়োজক আরিফ ইখতেখার  অনুষ্ঠানে সহৃদয় উপস্থিতির জন্য মেট্রো ওয়াশিংটন ডিসির কবিতাপ্রেমী সবার প্রতি  আন্তরিক কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন! এবং অনুষথানটির সার্বিক সাফল্যের জন্য সহযোগিতা করার জন্য সংলিষ্ট সকলুকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।
 
 

সর্বশেষ আপডেট ( শুক্রবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৬ )
 
পরে >
Free Joomla Templates